প্যাকেজ কর্মসূচি নিয়ে মাঠে আওয়ামী লীগ

ডেস্ক রিপোর্ট : ফেব্রুয়ারির মধ্যে চার সিটিসহ ছয় জেলায় জনসভা করবেন প্রধানমন্ত্রী । অভ্যন্তরীণ কোন্দল নিরসন তফসিল ঘোষণার আগেই প্রার্থীদের জানিয়ে দেওয়া । ব্যক্তি নয়, নৌকার পক্ষে প্রচারণা । সরকারের উন্নয়ন ও বিএনপি-জামায়াতের অপরাজনীতি তুলে ধরা । কেন্দ্রভিত্তিক কমিটি । টার্গেট ১৭০ আসন।

একাদশ সংসদ নির্বাচনে নিবন্ধিত সব রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে সরকারের ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে চায় ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। আর এই মিশনে কোনো ধরনের ঝুঁকি নিতে নারাজ আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাই দলীয় প্রার্থী বাছাই থেকে শুরু করে অভ্যন্তরীণ কোন্দল নিরসন, দলীয় প্রার্থী বাছাই, উন্নয়ন প্রচার, বিএনপি-জামায়াতের ধ্বংসাত্মক কর্মকাণ্ড জনগণের সামনে তুলে ধরতে উঠান বৈঠক, বর্ধিত সভা, কর্মিসভা, পথসভা, জনসভার প্যাকেজ কর্মসূচি নিয়ে মাঠে নেমে পড়েছে টানা দুই মেয়াদে ক্ষমতায় থাকা দলটি। গত সোমবার দেশের উত্তরাঞ্চলে শীতবস্ত্র বিতরণের মধ্য দিয়ে সাংগঠনিক সফর শুরু হয়েছে। নৌকা মার্কায় ভোট চাইতে জেলায় জেলায় জনসভা করবেন আওয়ামী লীগ সভানেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। দলীয় সূত্রমতে, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে তৃণমূল পর্যায়ে জরিপ সম্পন্ন করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। একটি বেসরকারি ও দুটি সরকারি সংস্থার পরিচালিত জরিপের তথ্য— বেগম খালেদা জিয়ার চেয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রায় তিনগুণ জনপ্রিয়। আর দল হিসেবেও বিএনপির চেয়ে জনপ্রিয় আওয়ামী লীগ। এ জনপ্রিয়তা ধরে রেখেই আওয়ামী লীগ আগামী নির্বাচনে যেতে চায়। তবে কিছু কিছু জায়গায় অভ্যন্তরীণ সংকটের কথা উঠেছে ওই জরিপে। অভ্যন্তরীণ কোন্দল নিরসন, দলীয় প্রার্থী বাছাই এবং বিএনপি-জামায়াতের শাসন আর বর্তমানের উন্নয়নের পার্থক্য জনগণের সামনে তুলে ধরতে কর্মসূচি পরিকল্পনা করা হচ্ছে। শনিবার রাতে গণভবনে আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকে নির্বাচনী প্রচারণায় মাঠে নামতে ১২টি টিম গঠন করে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সেই সঙ্গে প্রত্যেক নির্বাচনী এলাকায় নৌকার পক্ষে প্রচারণা চালাতে সব ধরনের নির্দেশ দেন তিনি। ব্যক্তির প্রচারণা চালাতে নিষেধ করা হয়েছে। আগামী ১২ জানুয়ারি থেকে ওই টিমের আনুষ্ঠানিকভাবে মাঠে নামার কথা। তবে গতকাল আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাংগঠনিক সম্পাদক বি এম মোজাম্মেল হক, ত্রাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী উত্তরাঞ্চলে ত্রাণ বিতরণ করেছেন। আওয়ামী লীগ নেতারা জানিয়েছেন, এর মাধ্যমেই জেলায় জেলায় সাংগঠনিক সফর শুরু হয়েছে।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *