সব দলের অংশ গ্রহণে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন চায় যুক্তরাষ্ট্র

বাংলাদেশে সব দলের অংশগ্রহণে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন আয়োজনের উপর জোর দিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। বাংলাদেশ সফররত এবং ঢাকাস্থ মার্কিন রাষ্ট্রদূত দুটি ভিন্ন অনুষ্ঠানে বলেছেন, খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে যে অনিয়ম ও কারচুপির অভিযোগ উঠেছে তা খতিয়ে দেখা উচিত। তারা মনে করে, এমন ভোট হওয়া প্রয়োজন যাতে দেশের মানুষের ইচ্ছা-আকাঙ্খার সত্যিকারের প্রতিফলন ঘটে।

ঢাকা সফররত মার্কিন দাতব্য সংস্থা ইউএসএআইডি’র প্রশাসক মার্ক গ্রিন সকালে এক গোলটেবিল বৈঠকে এ তাগিদ দেন। আমেরিকান ক্লাবে আয়োজিত ওই বৈঠকে সাংবাদিকরাও আমন্ত্রিত ছিলেন। বৈঠকে গ্রিন বলেন- বাংলাদেশ ও যুক্তরাষ্ট্র পরস্পরের যথার্থ বা কার্যকর বন্ধু। এ বন্ধুত্ব গড়ে উঠেছে পারস্পরিক মূল্যবোধের ভিত্তিতে। এখানে আমরা একে অন্যের সঙ্গে খোলাখুলি এবং সততার সঙ্গে কথা বলছি। দীর্ঘমেয়াদি টেকসই ও সফল অর্থনৈতিক উন্নয়নে ক্রিয়াশীল গণতান্ত্রিক সুশাসন অপূরণীয় উপাদান। এর আগে বুধবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে মার্কিন রাষ্ট্রদূত নির্বাচনের অনিয়ম নিয়ে হতাশা প্রকাশ করেন।

গ্রিন বাংলাদেশে বিরোধী নেতাদের বিরুদ্ধে চলমান আটক অভিযান (অনগোয়িং অ্যারেস্ট), বিচারবহির্ভূতভাবে হয়রানী এবং সাংবাদিকদের গ্রেফতারে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, মার্কিন ওই জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তা বলেন, যুক্তরাষ্ট্র বাংলাদেশের সত্যিকারের সব বন্ধুরা উদ্বিগ্ন। রোহিঙ্গা সংকট নিয়ে তিনি বলেন, এ সংকট মোকাবিলায় যুক্তরাষ্ট্র ধারাবাহিকভাবে বাংলাদেশের সঙ্গে মিলে কাজ করছে। আসন্ন বর্ষা মৌসুমে এ সংকট আরও ঘনিভূত হওয়ার আশংকা ব্যক্ত করে তিনি এটি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের আরও বেশী মনোনিবেশ করার ওপর জোর দেন। গত ১৩ই মে মার্ক বাংলাদেশে আসেন। তিনি এরইমধ্যে সরজমিনে রোহিঙ্গাদের অবস্থা দেখে এসেছেন। ক্যাম্প এলাকায় গিয়ে তিনি ট্রাম্প প্রশাসনের তরফে অতিরিক্ত ৪৪ মিলিয়ন ডলার সহায়তার ঘোষণাও দিয়েছেন।

Please follow and like us:

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *